পশ্চিম দিক থেকে কত ডিগ্রি সরে গেলে কিবলা ঠিক থাকে না?

ফতোয়া নং: ১০/১৯৭৭

বরাবর,
কেন্দ্রীয় দারুল ইফতা,
শাইখ যাকারিয়া ইসলামিক রিসার্চ সেন্টার, ঢাকা, বাংলাদেশ।

বিষয়ঃ মসজিদের কিবলা নির্ণয় সম্পর্কে

মুহতারাম মুফতি সাহেব! আমার পিতা মুহাম্মদ সিদ্দিকুর রহমান (ডিলার) সাহেব নিজ মালিকানাধীন তিন কাঠা জমি ওয়াকফ করে জামে মসজিদ ও পারিবারিক কবরস্থান নির্মাণ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন এবং জমির অবস্থা অনুযায়ী ইঞ্জিনিয়ার দিয়ে দুটি নকশাও করেছেন। নকশা নং এক ১০০% কিবলা। নকশা নং দুই ৭০% কিবলা।
এখন জানার বিষয় হলো-
প্রশ্ন এক: এক নং কিবলা ১০০% অনুযায়ী দিতে হবে? নাকি ৭০% হলেও সঠিক হবে।
প্রশ্ন দুই: সর্বনিন্ম কত% কিবলামুখী থাকলে নামায সঠিক হবে?
প্রশ্ন তিন: মসজিদের দক্ষিণ পাশে পারিবারিক কবস্থানের নির্ধারিত স্থানের উপর ছাদ দিয়ে অজুখানা ও ইমাম এবং মুয়াজ্জিনের থাকার কামরা বা নামায পড়ার শরয়ী বিধান কী?
প্রশ্ন চার: মায়্যতের দাফন করার সময় উল্লেখিত ১০০% কিবলা অনুসরণ করবো? নাকি ৭০% অনুসরণ করলেও চলবে।
উপরোক্ত বিষয়গুলো দলীলসহ জানিয়ে বাধিত করবেন।

নিবেদক
জনাব, আরমান
পিতা: মুহাম্মদ সিদ্দিকুর রহমান (ডিলার)
উদয়ন স্কুল রোড়, মুন্সি মার্কেট
দক্ষিণ আজমপুর, দক্ষিণখান, ঢাকা-১২৩০

الجواب باسم ملهم الصدق والصواب

ইসলামি শরিয়া মতে কিবলামুখী হয়ে নামায আদায় করা ফরয। সে ক্ষেত্রে নামাযির চেহারা কাবার দিক থেকে ৪৫ ডিগ্রির অধিক সরে গেলে নামায নষ্ট হয়ে যায়। মাইয়েত দাফনের ক্ষেত্রেও সেই নীতি অনুসরণীয়। আর ব্যক্তিগত জমিতে মালিক যা ইচ্ছা তাই করার অধিকার রাখে। তবে কবরের উপর নামায পড়া, অবস্থান করা ইত্যাদি নিষেধ।

সুতরাং প্রশ্নে বর্ণিত এক ও দুই নং সুরতে মসজিদের কিবলা পুরোপুরি কাবার দিকে না হয়ে ৪৫ ডিগ্রির ভিতরে থাকলে কিবলা নির্ধারণ সঠিক হলেও অনুচিত এবং চার নং সুরতে মাইয়েত দাফনের ক্ষেত্রে কিবলা নির্ণয়ে এই নীতিই অনুসরণ করবে।
উল্লেখ্য, কিবলা নির্ণয়ে ডিগ্রির হিসাব সর্বজনীন হওয়ায় সেই অনুযায়ী সমাধান দেয়া হয়েছে। প্রশ্নে আলোচ্য পার্সেন্টিজের হিসাব বিশেষজ্ঞের মাধ্যমে সরে জমিনে উক্ত ডিগ্রি হিসাবের সঙ্গে মিলিয়ে নিয়ে বাস্তব সমাধান বের করে নিতে হবে।
তিন নং সুরতে মসজিদের দক্ষিণ পার্শ্বে পারিবারিক কবরস্থানের জন্য নির্ধারিত স্থানটিতে কোন কবর না দিয়ে থাকলে এবং তা এখনো ওয়াকফকৃত না হওয়ার শর্তে তার উপর ছাদ দিয়ে অজুখানা, ইমাম-মুয়াজ্জিনের থাকার কামরা বানানো বা নামায আদায় করা সবই বৈধ। তবে পরবর্তীতে ঐ ছাদের নিচে কোন কবর না দেয়াই সমীচীন হবে।

الأدلۃ الشرعيۃ

البحر الرائق: 1/495(زکریا)

( قوله : ولغيره إصابة جهتها ) أي لغير المكي فرضه إصابة جهتها وهو الجانب الذي إذا توجه إليه الشخص يكون مسامتا للكعبة أو لهوائها إما تحقيقا بمعنى أنه لو فرض خطا من تلقاء وجهه على زاوية قائمة إلى الأفق يكون مارا على الكعبة أو هوائها وإما تقريبا بمعنى أن يكون ذلك منحرفا عن الكعبة أو هوائها انحرافا لا تزول به المقابلة بالكلية بأن بقي شيء من سطح الوجه مسامتا لها ؛

المختار: 1/96 (قدیمی کتب خانۃ)

ویوجھہ إلی القبلۃ علی شقہ الأیمن.

الدر المختار: 3/145 (زکریا)

ويخير المالك بين إخراجه ومساواته بالارض كما جاز زرعه والبناء عليه إذا بلي وصار ترابا.

احسن الفتاوی: 2/313 (زکریا)

            الجواب: بیت اللہ سے 45 درجہ تک انحراف مفسد نہیں اس سے زیادہ ہو تو  مفسد ہے، لہذا کسی ریاضي کے عالم سے تحقیق کروالیں، کہ مسحد کا انحراف کتنے درجہ ہے۔

والله أعلم بالصواب

كتبه
فیض اللہ
المتمرن بدار الإفتاء والإرشاد المركزية
بمركز الشيخ زكريا للبحوث الإسلامیة داكا
25/٥/١٤٤٢ ھ
শেয়ার করুন

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *